ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১২ মে ২০২২
  1. #সর্বশেষ সংবাদ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. উদ্যোক্তা
  6. কৃষি
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলা
  9. গণমাধ্যম
  10. জাতীয়
  11. দেশজুড়ে
  12. ধর্ম
  13. নারী ও শিশু
  14. পজিটিভ বাংলাদেশ
  15. প্রবাস

হজের খরচ বাড়ল লাখ টাকার বেশি

ঢাকা অফিস
মে ১২, ২০২২ ৪:০০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রেস ব্রিফিংয়ে হজ প্যাকেজ ঘোষণা ষ চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ৮ জুলাই পবিত্র হজ

বৈশ্বিক করোনা মহামারির দরুন ২০২০ সালে হজ না হলেও ঘোষিত প্যাকেজ থেকে চলতি বছর হজের খরচ বাড়ল ১ লাখ টাকার বেশি। গতকাল বুধবার সচিবালয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে হজ ব্যবস্থাপনা নির্বাহী কমিটির সভা শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সরকারি ব্যবস্থাপনায় দু’টি প্যাকেজ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় একটি হজ প্যাকেজ ঘোষণা করেন। এতে সরকারিভাবে প্যাকেজ-২ খরচÑ ৪ লাখ ৬২ হাজার ১৫০ টাকা এবং বেসরকারিভাবে প্যাকেজ-২-এর খরচÑ ৪ লাখ ৫৬ হাজার ৫৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। সরকারিভাবে প্যাকেজ-১-এর খরচÑ ৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৪০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ঘোষিত প্যাকেজ অনুযায়ী এবার হজযাত্রায় প্রত্যেক হজযাত্রীর লাখ টাকারও বেশি বাড়তি খরচ করতে হবে। ব্রিফিংয়ে আরো উপস্থিত ছিলেন, ধর্ম সচিব কাজী এনামুল হাসান, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব রিয়ার এডমিরাল (অব.) খুরশেদ আলম, হাব সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম, হাবের সিনিয়র সহসভাপতি মাওলানা ইয়াকুব শরাফতী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকি, ক্যাবের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এয়ার কমোডর সাদিকুর রহমান চৌধুরী, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (হজ) মো. মতিউল ইসলাম, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিমান) মো. মুহিদুল ইসলাম, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব দেলোয়ারা বেগম, অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. সাইদুর রহমান, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক খান, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব মো. ছাইফুল ইসলাম, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এআইজি রেবেকা সুলতানা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব নাসরিন জাহান, পরিচালক হজ মো. সাইফুল ইসলাম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. মো. মুশফিকুর রহমান।

সভা শেষে, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান সাংবাদিকের হজ প্যাকেজ সম্পর্কে ব্রিফ করেন। তিনি বলেন, সরকারিভাবে হজে যেতে প্যাকেজ-১ এ খরচÑ ৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৪০ এবং প্যাকেজ-২ এ খরচÑ ৪ লাখ ৬২ হাজার ১৫০ টাকা খরচ ধরা হয়েছে। এছাড়া বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে একটি প্যাকেজে খরচ ধরা হয়েছেÑ ৪ লাখ ৫৬ হাজার ৫৩০ টাকা। প্যাকেজ-১-এর ক্ষেত্রে খরচ বেড়েছেÑ ১ লাখ ২ হাজার ৩৪০ টাকা, প্যাকেজ-২-এর ক্ষেত্রে এবার খরচ বেড়েছেÑ ১ লাখ ২ লাখ ১৫০ টাকা। ২০২০ সালে প্যাকেজ ঘোষণা হলেও বাংলাদেশ থেকে কেউ হজে যেতে পারেননি। তখন হজ পালনে প্যাকেজ-১-এ ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা এবং প্যাকেজ-২ এ খরচ ধরা হয়েছিল ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা। প্যাকেজ-৩ এর খরচ ধরা হয়েছিলÑ ৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজ এজেন্সিরা সরকারি ব্যবস্থাপনার প্যাকেজ-১ ও প্যাকেজ-২ এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে একাধিক প্যাকেজ ঘোষণা করতে পারবে। হজ প্যাকেজের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পর্বে ব্যয় বাড়েনি জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০২০ সালে সউদী রিয়ালের বিনিময় হার ছিল ২৩ টাকা। বর্তমানে রিয়ালের এই হারের পরিমাণ ২৪ টাকা ৩০ পয়সা। এটিও প্যাকেজ মূল্যবৃদ্ধির অন্যতম কারণ। এছাড়া সউদী আরব পর্বে সব খাতের ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট, সার্ভিস চার্জ কর অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। মোয়াসসার খরচ দ্বিগুণ হয়েছে। বাড়ি ভাড়া বেড়েছে। প্যাকেজ মূল্যবৃদ্ধির জন্য এ কারণগুলো দায়ী।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, দ্বিপাক্ষিক হজচুক্তি মোতাবেক বাংলাদেশ থেকে এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪ হাজার জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫৩ হাজার ৫৮৫ জনসহ মোট ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন হজযাত্রী পবিত্র হজ পালনের জন্য সউদী আরব গমনের সুযোগ পাবেন।
তিনি আরো বলেন, যদি কোনো কোটা খালি থাকে, তাহলে অবশিষ্ট কোটা পূরণের জন্য সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধনের ক্রম অনুসারে হজ পরিচালকের অনুমোদনে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধন করতে পারবেন। ফরিদুল হক খান বলেন, বিমানের টিকিট বাবদ নেয়া অর্থ এজেন্সি ব্যাংক থেকে উত্তোলন করতে পারবে না। হজযাত্রীর সংখ্যা অনুযায়ী সরাসরি পে-অর্ডারে মাধ্যমে এয়ারলাইন্সকে ওই অর্থ পরিশোধ করতে হবে এবং সউদী আরবের বিভিন্ন সার্ভিস চার্জ ও পরিবহন বাবদ গৃহিত অর্থ আইবিএসএন (ইন্টারন্যাশনাল ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নাম্বার) এর মাধ্যমে সউদী আরবে পাঠানো ছাড়া এজেন্সি উত্তোলন করতে পারবে না। এ বছর রুট টু মক্কা ইনিশিয়েটিভের আওতায় ঢাকার হজযাত্রীদের শতভাগ হজযাত্রীর সউদী আরবের প্রি-অ্যারাইভাল ইমিগ্রেশন ঢাকায় সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী ৩১ মে-ই বিমানের প্রথম হজ ফ্লাইট সউদীর উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবে বলে আমরা আশাবাদী। সউদী নিয়ম অনুযায়ী এবার ৬৫ বছরের ঊর্ধ্বে প্রায় ১০ হাজার হজযাত্রী হজে যেতে পারবে না। তিনি বলেন, হজ এজেন্সি ছাড়া অন্য কোনো এজেন্সির কাছে হজযাত্রীর বিমান টিকিট বিক্রির জন্য অনুমতি দেয়া যাবে না। কোনো হজ এজেন্সিকে কোনো অবস্থায়ই ৩০০ এর অধিক টিকিট দেয়া যাবে না। এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, মক্কা-মদিনায় সরকারি ৪ হাজার হজযাত্রীর বাড়িভাড়া নিয়ে এবার কোনো সমস্যা হবে না। তিনি সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার কার্যক্রমে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এসময়ে হাব সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম জানান, আজ বৃহস্পতিবার হাবের উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলনের বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজ প্যাকেজ ঘোষণা করা হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।