1. rashidarita21@gmail.com : bastobchitro :
ফেরি সঙ্কটে দুর্ভোগ চরমে | Bastob Chitro24
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৯:১৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা নিয়ে যা বললেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী সরকারের নির্দেশনায় আন্দোলন দমনের চেষ্টা চলছে: বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন কোটা সংস্কারের দাবিতে কুষ্টিয়ায় কয়েকশত কোটা আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া কুষ্টিয়া ও কিশোর অপরাধ পিএসসির প্রশ্ন ফাঁস: বড় দুর্নীতিবাজদের খুঁজছে সিআইডি রাস্তাঘাট বন্ধ না করে কোটা বিরোধীরা কোর্টে এসে তাদের কথা বলুক কুষ্টিয়ার এ্যাড. পলল, আন্তর্জাতিক শান্তি সংস্থা গ্লোবাল পিস চেইনের বৈশ্বিক শান্তি দূত হলেন কুষ্টিয়া ভূমি রেজিস্ট্রার অফিসে দুর্নীতির অভিযোগ কুষ্টিয়া ভূমি রেজিস্ট্রী অফিসে দুর্নীতির অভিযোগ স্বর্ণের দাম আবারো কমলো

ফেরি সঙ্কটে দুর্ভোগ চরমে

ঢাকা অফিস
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২২

আরিচা ঘাটে পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে বাড়ছে যানবাহনের চাপ

ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে দৌলতদিয়া পাটুরিয়া নৌরুটেও ফেরি সঙ্কটে যাত্রী ও চালকদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে বাড়ছে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ। আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্যের ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন বিস্তারিত:

শাহজাহান বিশ্বাস, আরিচা থেকে, আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে ফেরি সংকটের কারণে গতকাল বুধবার আরিচা ঘাটে মহাসড়কের উপর ২ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। এতে ভোগান্তিতে পড়ছে এসব ট্রাকের শ্রমিকরা ও ঘাটে পার হতে আসা ছোট গাড়ির যাত্রী ও এ সড়কে চলাচলকারী স্থানীয়রা। ঈদের আর মাত্র কয়েকদিন বাকী থাকলেও নতুন করে কোনো ফেরি যুক্ত হয়নি এ নৌরুটে। এদিকে দিন যাচ্ছে আর যানবাহনের চাপ বাড়ছে। এ অবস্থায় বাড়তি যানবাহনের চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে ফেরি কর্তৃপক্ষ। ফেরি না বাড়ালে এ নৌরুটের ফেরি সার্ভিসের চরম বিপর্যয়ে নেমে আসবে বলে আশংকা করছেন এ নৌরুটে চলাচলকারী গাড়ি শ্রমিকরা।

বিআইডব্লিউটিসি সূত্রে জানা গেছে, আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে চলাচলকারী তিনটি ফেরির মধ্যে ২টি ফেরি চলাচল করছে। ইঞ্জিন সমস্যার কারণে কপোতি নামের একটি ফেরি গত মঙ্গলবার থেকে বিকল হয়ে আরিচা ঘাট বসিয়ে রাখা হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে নতুন করে একটি ফেরি যুক্ত হওয়ার কথা থাকলেও অদিবধিও তা হয়নি। তাই একটি গাড়ি ঘাটে এসে পারাপার হতে সময় লাগছে ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা। আর পণ্যবাহী ট্রাকের আরো বেশী। একদিন পার না হওয়া পর্যন্ত আরিচা ঘাটে আসা ট্রাক ফেরি পার হতে পারছে না। ফলে ট্রাকের দীর্ঘ লাইন আরো বাড়ছে। নদীর ওপারে পাবনার কাজিরহাটেও একই অবস্থা। কাজিরহাট ফেরি ঘাট থেকে সড়কের উপর পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ লাইন রয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে দেশের গুরুত্বপূর্ণ নৌপথ হচ্ছে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট। ঈদ উপলক্ষে এ নৌরুটে আরো দু’টি ফেরি যুক্ত হয়ে মোট ফেরি হয়েছে ২১টি। এর মধ্যে রো-রো ফেরি গোলাম মওলা, রুহুল আমিন এবং ইউটিলিটি ফেরি শাপলা শালুক পাটুরিয়া ভাসমান কারখানায় সাময়িক মেরামতে রয়েছে।

গতকাল বুধবার বিকালে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ১৮টি ফেরি চলাচল করছে। এ নৌরুটে যাত্রীবাহী গাড়ি অগ্রাধিকারের ভিত্তিত্বে পারাপার করা হচ্ছে। ফলে পাটুরিয়া ঘাটে যাত্রীবাহী গাড়ির কোনো দীর্ঘ লাইন না থাকলেও প্রায় ৪শ’ পণ্যবাহী ট্রাক ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে। অনুরূপ নদীর ওপার রাজবাড়ির দৌলতদিয়া ঘাটে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের ৪ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানবাহিনের দীর্ঘলাইন রয়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্ল্উিটিসি) আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ বলেন, প্রিয়জনদেরকে নিয়ে একসাথে ঈদ করার জন্য গত কয়েকদিন ধরেই লোকজন পাটুরিয়া ঘাট হয়ে বাড়িতে যাচ্ছেন। ফেরি কম থাকায় কয়েকদিন কিছুটা সমস্যা হয়েছে। নতুন করে দু’টি ফেরি যুক্ত হওয়ায় আজ বুধবার একটু স্বস্তির পাওয়া গেছে। যাত্রবাহী গাড়ি আসা মাত্র পারাপার করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, যখন যাত্রীবাহী গাড়ির চাপ কম থাকে তখন সিরিয়ালে থাকা পণ্যবাহী ট্রাকও পারাপার করা হচ্ছে। অগ্রাধিকারের ভিত্তিত্বে পরিবহণ বাস, ও ছোট গাড়ি পারাপার করা হচ্ছে। এদের কোন ভোগান্তি নাই। বর্তমানে এ নৌরুটে ২১টি ফেরির মধ্যে ১৮টি চলাচল করছে। বাকী তিনটি ফেরি সাময়িক মেরামতে রয়েছে। এ ফেরিগুলো মেরামত কাজ শেষে এ নৌবহরে যুক্ত হলে আর কোন সমস্যা থাকবে না বলে তিনি জানান।

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া মাদারীপুরের বাংলাবাজার নৌ-রুটে উভয়মুখী যানবাহনের চাপ দেখা গেছে। ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে ঘরমুখো মানুষ ও যানবাহনের চাপ বেড়েছে কয়েকগুণ। ফেরিতে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও মাঝিকান্দি নৌরুটে পদ্মা নদী পাড়ি দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে ঘাটে আসছে সারি সারি প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস মোটরসাইকেল ও অ্যাম্বুলেন্স।

২৪ ঘণ্টা ফেরি চালু হওয়ার পরেও সকাল থেকেই ঘরমুখো মানুষের চাপ দেখা যাচ্ছে ঘাটে। একইসঙ্গে পারাপারের অপেক্ষায় জমা হচ্ছে ব্যক্তিগত গাড়ি। বহরে কম ফেরি থাকায় গাড়ি পার হতে অপেক্ষা করতে হচ্ছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন শিমুলিয়া-বাংলাবাজার-মাঝিকান্দি রুটের যাত্রীরা।
গতকাল বুধবার সকাল থেকে পারাপারের অপেক্ষায় ঘাটে শতশত ব্যক্তিগত যানবাহনে উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। তবে লঞ্চ ও স্পিডবোটে যাত্রী স্বাভাবিক ছিল। এদিকে আজ থেকে পিকআপ ও মিনি কাভার্ডভ্যান পারাপার বন্ধ ঘোষণা করেন বিআইডব্লিউটিসি। তাই ফেরিতে পিকআপ পারাপার করা হচ্ছে না। ঘাটে শতাধিক পিকআপ ও মিনি কাভার্ডভ্যান ঘাটে পারাপারে জন্য অপেক্ষায় থাকতে দেখা গেছে।

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাট সূত্র জানায়, এ নৌ-রুটে আজ কালের মধ্য ফেরি ফরিদপুর বহরে ফেরি যুক্ত হচ্ছে। বাংলাদেশ অভন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশন বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহম্মেদ জানান, ঘাট এলাকায় যানবাহনের কিছুটা চাপ রয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল থেকে ৮টি ফেরিতে যানবাহন পারাপার হচ্ছে। দুই রুটে ২৪ ঘণ্টা ফেরি চলাচল করছে।

বিআইডব্লিউটিএ’র শিমুলিয়া ঘাটের পরিবহন পরিদর্শক মো. সোলেমান জানান, বর্তমানে এই নৌপথে ১৫৩টি স্পিডবোট ও ৮৩টি লঞ্চ চলাচল করছে। ফেরির সংখ্যা কম থাকায় লঞ্চেই বেশি সংখ্যক যাত্রী পার হচ্ছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
প্রযুক্তি সহায়তায়: রিহোস্ট বিডি