1. rashidarita21@gmail.com : bastobchitro :
কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা | Bastob Chitro24
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বিজেপি ৪০০ পার করলে, পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অংশ হয়ে যাবে ডেঙ্গু নিয়ে মিথ্যাচার করছেন মেয়র তাপস: সাঈদ খোকন বাজারভিত্তিক সুদহারে হস্তক্ষেপের ইঙ্গিত বাংলাদেশ ব্যাংকের কুষ্টিয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমী কালচারাল অফিসার সুজন রহমানের পারিবারিক সংগঠনের সন্ধান ১৩৯ উপজেলায় দলীয় প্রতীকহীন ভোট আজ সহিত্যিক মীর মোশাররফ স্কুলের প্রাচীর সংস্কার হচ্ছে অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে। সরকারি মালিকানাধীন ২৮টি শিল্পপ্রতিষ্ঠান লোকসানে চলছে হজের ভিসায় নতুন বিধি-নিষেধ জারি গুণী শিক্ষক মোসা. আখতার বানুর অবসজনিত বিদায় অনুষ্ঠান রাজশাহী ইউনিভার্সিটি এক্স স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের ক্যাপ বিতরণ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ জুলাই, ২০২২

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে এক কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে আহত করে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা পরে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে ওই কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (১৭ জুলাই) সকালে নন্দলালপুর ইউনিয়নের সোন্দাহ নতুন পাড়া রাস্তার পাশে আহত অবস্থায় পরে থাকা ছাত্রকে উদ্ধারের পর চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেবার পথে তার মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১৬ জুলাই) রাত থেকে সে নিখোঁজ ছিলো। নিহত কলেজ ছাত্র কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের নন্দলালপুর গ্রামের দিনমজুর যোগেষ কুমার সরকারের ছেলে নয়ন কুমার সরকার (১৯)। সে কুমারখালী নন্দলালপুর ইউনিয়নের আলাউদ্দিন আহমেদ ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলো। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার (১৬ জুলাই) রাত থেকে নয়ন নিখোঁজ ছিলো। পরিবারের সদস্যরা সারারাত খুঁজে তার সন্ধান পাননি এসময় নয়নের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিলো। এরপর ভোররাতে পরিবারের লোকজন খবর পেয়ে নন্দনালপুর ইউনিয়নের সোন্দাহ নতুনপাড়া মাঠের মধ্যে সড়কের পাশে নয়নকে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেবার পরামর্শ দেন। চিকিৎসার জন্য নয়নকে ঢাকা নেবার পথে তার মৃত্য হয়। নিহতের বাবা যোগেশ কুমার সরকার বলেন, গতকাল শনিবার (১৬ জুলাই) মধ্যরাত থেকে নয়ন নিখোঁজ ছিলো। ওর মোবাইল ফোনটিও বন্ধ ছিলো। অনেক খোঁজাখুঁজি করে কোথাও রা সন্ধান পায়নি। পরে রবিবার (১৭ জুলাই) ভোররাতে মাঠের মধ্যে সড়কের পাশে পড়ে থাকার খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে নয়নকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার ঢাকায় চিকিৎসার জন্য ঢাকা নিতে বলে। পরে ঢাকা যাওয়ার পথে নয়ন মারা যায়। এসময় তিনি আরও বলেন, স্থানীয় এক মুসলিম মেয়ের সাথে তার ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। এনিয়ে পারিবারিকভাবে নয়নকে শাসন করেছিলাম। হয়তো ওই মেয়ের পরিবারের সদস্যরাই তাকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমি আমার ছেলের হত্যাকারীদের উপযুক্ত বিচার দাবী করছি। এ বিষয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আশরাফুল আলম বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় ভোর ৬টার দিকে নয়নকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ভর্তির কিছুক্ষণ পরেই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার্ড করা হয়। কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীকে চিহ্নিত করে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
প্রযুক্তি সহায়তায়: রিহোস্ট বিডি