1. rashidarita21@gmail.com : bastobchitro :
করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা, ঈদে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানার পরামর্শ | Bastob Chitro24
শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪০ অপরাহ্ন

করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা, ঈদে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানার পরামর্শ

ঢাকা অফিস
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১ মে, ২০২২
  • ৭ বার পঠিত

করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা বাড়ছে। আর এ ব্যাপারে এখনই সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় কারিগরি কমিটি। পার্শ্ববর্তী দেশ সহ এশিয়া এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণ উর্ধ্বমুখী। যা উদ্বেগজনক বলে মরে করছেন বিশেষজ্ঞরা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশে করোনার চতুর্থ ঢেউ যে আর আসবে না সেটা হলফ করে বলা যাচ্ছে না। তাই সবাইকে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।
এ বিষয়ে জাতীয় পরামর্শক কমিটির অন্যতম সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম মানবজমিনকে বলেন, দেশে করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা রয়েছে। তবে এই ঢেউ আগের অন্যান্য ঢেউয়ের মতো ওতো মারাত্মক হবে না। কারণ হিসেবে তিনি বলছেন, ইতিমধ্যে মানুষেল মধ্যে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশে ভ্যাকসিন কভারেজও ভালো। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সময় যে অবস্থা ছিল এখন আমাদের দেশ সেই অবস্থায় নেই এই জনস্বাস্থ্যবিদ পরামর্শ দিয়ে বলেন, আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। এবার ঈদে অনেক মানুষ গ্রামে যাবেন। সুতরাং জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। একই সঙ্গে সবাইকে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানতে হবে।
সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, দেশে করোনার চতুর্থ ঢেউ যে আর আসবে না সেটা হলফ করে বলা যাচ্ছে না। তাই সবাইকে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। ভারতে আবার করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। তাই সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সবাইকে করোনা টিকা বিশেষ করে বুস্টার ডোজ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, করোনায় আমাদের মৃত্যুহার ও সংক্রমণ এখন শূন্যের কোটায়। এটা ধরে রাখতে হলে আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। যারা টিকা এখনও নেয়নি তাদের টিকা নিতে হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা আগামীতে বুস্টার ডোজের ক্যাম্পেইন হাতে নিচ্ছি। বুস্টার ডোজ নিয়ে নিলে আমরা সুরক্ষিত থাকবো। যেকোনও সময় আবার করোনা বাড়তে পারে।
দেশে ফের করোনা সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা জাতীয় কারিগরি কমিটিরও। এখন থেকেই সতর্ক না হলে বাংলাদেশেও ফের করোনার সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা করেছে জাতীয় কারিগরি কমিটি। কমিটি বলেছে, দেশে কোভিড-১৯-এর সংক্রমণ নিম্নমুখী হলেও পার্শ্ববর্তী দেশ সহ এশিয়া এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণ উর্ধ্বমুখী। যা উদ্বেগজনক। পরামর্শক কমিটি বলেছে, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সকল ক্ষেত্রে শতভাগ সঠিকভাবে মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করাসহ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের সুপারিশ করা হয়। সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে প্রচার-প্রচারণা বৃদ্ধির ও সুপারিশ করা হয়। যে সকল দেশে সংক্রমণের হার বেশি সে সকল দেশ থেকে বাংলাদেশে আগমণের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন প্রদান করা থাকলেও কোভিড নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিশ্চিত করা এবং সকল বন্দরে জনগণের প্রবেশ পথে স্ক্রিনিং জোরদারকরণের পরামর্শ দেয়া হয়। আসন্ন ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষ্যে বাজার ও কেনাকাটা এবং ঘরমুখী মানুষের যাতায়াত এর সময় মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করার সুপারিশ করা হয়। এছাড়া তারাবীর নামাজ ও ঈদ জামাতে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর মাধ্যমে জনগনকে উদ্বুদ্ধ করার পরামর্শ দেয়া হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় হাসপাতাল সমূহের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে সভা আয়োজন করে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেয়ার সুপারিশ করা হয়। জিনোম সিকোয়েন্সিং ও সার্ভেলিয়েন্স জোরদার করার সুপারিশ করা হয়।
গত ২৭শে এপ্রিল ঢাকায় আমেরিকান সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থার (সিডিসি) কান্ট্রি ডিরেক্টর নিলি কায়দোস ড্যানিয়েল জানিয়েছেন, করোনার চতুর্থ ঢেউয়ের ঝুঁকি আছে। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ মহামারির চতুর্থ ঢেউয়ের ঝুঁকিতে আছে বিশ্ব। তবে সেই ঢেউ শুরু হলেও তা আগের তুলনায় তীব্র হবে না। সিডিসির কান্ট্রি ডিরেক্টর আরও বলেন, ইতিমধ্যে বহু মানুষের দেহে ‘হার্ড ইমিউনিটি’ তৈরি হয়েছে বলে ধরে নেয়া যায়। বহু মানুষ টিকাও পেয়েছেন। সে কারণে চতুর্থ ঢেউ এলেও তা তীব্রতর হওয়ার শঙ্কা কম। তবে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর জোর দেন নিলি ড্যানিয়েল। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি রাখারও পরামর্শ দেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
প্রযুক্তি সহায়তায়: রিহোস্ট বিডি